ঢাকা রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮

ইকোপার্কে ঘুরতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার তরুণী

বরগুনা প্রতিনিধি | প্রকাশিত: ১ এপ্রিল ২০২১ ১৮:১৫; আপডেট: ১ এপ্রিল ২০২১ ১৮:১৬

বরগুনার তালতলী উপজেলার সোনাকাটা টেংরাগিরি ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। এ ঘটনায় ওই তরুণী ৯ জনের জনের বিরুদ্ধে তালতলী থানায় মামলা করেছেন। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন, সোহাগ (২৫), হাসান (২৮), মিজানুর (২৪) ও জাহিদুল (২৭)।

বৃহস্পতিবার ওই তরুণী আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দি শেষে তাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

জানা গেছে, আমতলী উপজেলার নীলগঞ্জ গ্রামের ওই তরুণী তার দুলাভাইর সঙ্গে বুধবার (৩১ মার্চ) বিকালে টেংরাগিরি-ইকোপার্কে বেড়াতে যান। ইকোপার্কের হরিণের শেডের কাছে গিয়ে শ্যালিকা ও গাড়িচালক মাহবুবকে রেখে ভগ্নিপতি একটি দোকানে খাবার পানি আনতে যান। ওই সুযোগে ওত পেতে থাকা চারজনের একটি দল মোটরসাইকেল চালককে গাছের সঙ্গে বেধে তার মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে ওই তরুণীকে জঙ্গলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা রাত ১০টার দিকে গভীর জঙ্গল থেকে তরুণীকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়।

 

খবর পেয়ে তালতলী থানার ওসি (তদন্ত) ফরিদুল ইসলাম ঘটনাস্থল থেকে তরুণীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এ ঘটনার ধর্ষণের শিকার তরুণী বাদী হয়ে সোহাগ (২৫), হাসান (২৮), মিজানুর (২৪) ও জাহিদুলের (২৭) নামে তালতলী থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

বৃহস্পতিবার পুলিশ ওই তরুণীকে জবানবন্দির জন্য আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করেন। আদালতের বিচারক সাকিব হোসেন জবানবন্দি শেষে ওই তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) ফরিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ধর্ষণের শিকার ওই তরুণীকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়। ওই তরুণী বাদী হয়ে চার আসামির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top