ঢাকা শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৮ শ্রাবণ ১৪২৮

কোনও রোগী সেবা বঞ্চিত হবেন না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: | প্রকাশিত: ১ এপ্রিল ২০২১ ১৮:০৬; আপডেট: ১ এপ্রিল ২০২১ ১৮:১০

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক (ফাইল ফটো)
 
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, করোনার প্রকোপ দিন দিন যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে, এতে করে হাসপাতাল  দ্রুত বেড বাড়ানোর বিকল্প নেই। এ কারণে সরকার কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালের সংখ্যাসহ সকল হাসপাতালে শয্যা সংখ্যা বৃদ্ধি করছে। তিনি বলেন, ‘হাসপাতালে একইঞ্চি জায়গা খালি থাকলেও কোনও রোগীকে সেবা বঞ্চিত করা হবে না।’

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) অনলাইন জুম অ্যাপের মাধ্যমে অংশ নিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নতুন ১০টি আইসিইউ বেড উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।’

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রি. জে. নাজমুল হোসেনসহ ঢামেকের চিকিৎসক ও কর্মকর্তারা এ সময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।
 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা নর্থ সিটি করপোরেশনের একটি মার্কেটকে পুরোপুরি কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল করা হয়েছে। এই হাসপাতালে মোট সাড়ে ১২শ’ করোনা ডেডিকেটেড শয্যা রয়েছে। এখানে ৫০টি আইসিইউ বেড ও ২০০টি এসডিও বেড রয়েছে। এর পাশাপাশি একহাজারটি আইসোলেশন বেড রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এটির বাইরে অন্যান্য সরকারি হাসপাতালের প্রতিটিতেই কোভিড শয্যা সংখ্যা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৮০০টির মতো করোনা ডেডিকেটেড শয্যা রয়েছে। এখানে প্রতিটি বেডেই হাইফ্লো নেজাল ক্যানুলা সুবিধা আছে। ঢাকা মেডিক্যালে আগের আইসিইউ, এসডিও এর সঙ্গে আজ আরও ১০টি নতুন আইসিইউ বেড সংযুক্ত হলো।’

তিনি বলেন, ‘অন্যান্য সরকারি হাসপাতালেও করোনা রোগীদের জন্য সুবিধা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে হাসপাতালে একইঞ্চি জায়গা খালি থাকলেও কোনও রোগীকে সেবা বঞ্চিত করা হবে না। কিন্তু তারপরও কথা থেকে যায়। যেভাবে প্রতিদিন করোনা বৃদ্ধি পাচ্ছে, এভাবে চলতে থাকলে দেশে কোনও হাসপাতালেই রোগী রাখার জায়গা থাকবে না। এজন্য করোনা বৃদ্ধি ঠেকাতে দলমত নির্বিশেষে সকলকেই এগিয়ে আসতে হবে এখনই। প্রধানমন্ত্রীর ১৮টি নির্দেশনার যথাযথ বাস্তবায়নসহ সকল স্থানে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলতে না পারলে, আগামীতে এই প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে।’




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top