ঢাকা শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৮ শ্রাবণ ১৪২৮

৪ লেনের গাড়ি ঢুকছে এক লেনে, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তীব্র যানজট

জেলা প্রতিনিধি | প্রকাশিত: ১৮ জুলাই ২০২১ ০২:১২; আপডেট: ১৮ জুলাই ২০২১ ০২:১৬

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই শিল্পাঞ্চল এলাকায় চলছে ফ্লাইওভার নির্মাণকাজ। ফলে মহাসড়কের চার লেনের গাড়ি এক লেন দিয়ে বের হচ্ছে। এছাড়া গোড়াই-সখিপুর সড়কের যাত্রীবাহী বাস ও পশু এবং পণ্যবাহী ট্রাকগুলো ইউটার্ন নিয়ে মহাসড়কে উঠছে। ফলে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ক্রমে তীব্র হচ্ছে যানজট।

শনিবার (১৭ জুলাই) বিকেলে গোড়াই থানা হাইওয়েতে দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তারা এসব তথ্য জানিয়েছেন।

 
ফলে যানবাহনের স্বাভাবিক গতি কমে গেছে এবং যানজট বেড়েছে। তারা ওয়াচ টাওয়ারের মাধ্যমে যানজট পরিস্থিতি নিয়মিত মনিটরিং করছেন।

জানা গেছে, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে টাঙ্গাইল জেলাসহ উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলের ২৬টি জেলার যানবাহন চলাচল করে থাকে। স্বাভাবিক সময়ে এ মহাসড়কে প্রতিদিন কমপক্ষে ২৫-৩০ হাজার যানবাহন চলাচল করে থাকে। প্রতি বছর ঈদ মৌসুমে যানবাহন চলাচল কয়েকগুণ বৃদ্ধি পায়।

ঈদযাত্রার কারণে শুক্রবার (১৬ জুলাই) থেকে মহাসড়কে যান চলাচল বাড়তে শুরু করে। শনিবার (১৭ জুলাই) তা আরও বেড়েছে।

উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চল থেকে পশুবাহী শত শত ট্রাক ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে এই মহাসড়ক হয়ে চলাচল করছে।

মহাসড়কের গোড়াই এলাকায় ফ্লাইওভার নির্মাণকাজ চলায় এক লেনে যানবাহন চলাচল করছে। চার লেনের যানবাহন ওই স্থানে এসে এক লেনে চলাচল করায় থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

সিরাজগঞ্জ থেকে আসা পশুবাহী ট্রাকের চালক ইয়াছিন মিয়া জানান, ১৪টি গরু নিয়ে ঢাকার গাবতলী যাচ্ছেন। মহাসড়কের যমুনা সেতুর পূর্বপাড়ে যানজটে আটকা পড়তে হয়েছে। এছাড়া মির্জাপুরের গোড়াই এসেও যানজটে পড়তে হলো।

পাবনা থেকে আসা পশুবাহী ট্রাকের চালক আল-আমিন জানান, যানজটে আটকা পড়লে পশু নিয়ে বেশি দুশ্চিন্তায় থাকতে হয়।

গরু ব্যবসায়ী আব্দুল মিয়া জানান, তারা চারজন ছোট-বড় ১০টি গরু কিনেছেন। যার মূল্য প্রায় ১১ লাখ টাকা। যানজটে আটকা পড়লে বিপদের শেষ থাকে না। তার উপর যে গরম পড়েছে! যে কোনো সময় গরু গরমে অসুস্থ হয়ে পড়তে পারে। এতে তাদের বড় ধরনের লোকসান হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

গোড়াই এলাকায় ওয়াচ টাওয়ারে দায়িত্বে থাকা হাইওয়ে পুলিশের সার্জেন্ট রুবেল হাসান জানান, মহাসড়কে যাত্রীবাহী বাসের পাশাপাশি পশুবাহী যানবাহনের চলাচল কয়েকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। চার লেনের যানবাহন গোড়াই এলাকায় এসে এক লেনে চলাচল করছে।

এছাড়া গোড়াই-সখিপুর সড়কের গাড়ি মহাসড়কে ওঠার সময় যানবাহনের গতি কমে যাচ্ছে। ফলে যানজট তীব্র হচ্ছে। রোব ও সোমবার যানজট আরও বাড়ার শঙ্কা করছেন তারা।

তবে ওয়াচ টাওয়ারের মাধ্যমে পুলিশ নিয়মিত মনিটরিং করছে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক জানান, মির্জাপুর থানা ও জেলা পুলিশের দুই শতাধিক সদস্য মহাসড়কের মির্জাপুর উপজেলার প্রায় ১৬ কিলোমিটার এলাকায় নিয়মিত কাজ করছেন।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top