ঢাকা মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

মাস্ক হাতে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: | প্রকাশিত: ২১ মার্চ ২০২১ ২৩:০০; আপডেট: ৪ অক্টোবর ২০২২ ০২:২০

করোনা সংক্রমণ রোধে জনগণকে সচেতন করতে ‘মাস্ক পরার অভ্যাস, করোনামুক্ত বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্য নিয়ে সারাদেশে পুলিশের বিশেষ উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি চলছেই। আইন প্রয়োগ নয়, জনসচেতনতা বাড়াতে এই উদ্যোগ বলছে পুলিশ। রবিবার (২১ মার্চ) সকাল থেকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ এলাকার বিভিন্ন স্পটে চলে এই উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি।

পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, সাধারণ মানুষের মাঝে এখন মাস্ক পরার অভ্যাসটা অনেকটা কমে গেছে। পুলিশ যদি এ কার্যক্রম অব্যাহত রাখে তাহলে জনসচেতনতা বাড়ার পাশাপাশি করোনা সংক্রমণ কিছুটা হলেও কমবে। মানুষকে মাস্ক পরার অভ্যাস করতে হবে। অনেকে টিকা নিয়েছে এরপরেও আমাদের সবাইকে মাস্ক পরে চলাফেরা করতে হবে।

 

চলতি মাসের মার্চের শুরুতেই করোনা সংক্রমণের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় গত ১৮ মার্চ আইজিপি বেনজীর আহমেদ জনগণকে সচেতন করতে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি করার ঘোষণা দেন। এসময় তিনি জনগণের সহায়তা কামনা করেন।

রবিবার (২১ মার্চ) রাজধানীতে জনসচেতনতা কার্যক্রমের উদ্বোধন করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস কৃষ্ণ পদ রায় বলেন, জনগণকে মাস্ক পড়ানো বাধ্য করতেই আমাদের এই কার্যক্রম। আইন প্রয়োগ নয়, সচেতন হয়েই জনগণ মাস্ক ব্যবহার করবে, এটাই এই কার্যক্রমের মূল উদ্দেশ্য।

ফার্মগেটে মাস্ক বিতরণের সময় তেজগাঁও বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, দেশব্যাপী করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ পুলিশের মাস্ক বিতরণ কার্যক্রম আজ থেকে শুরু হয়েছে। আমরা মূলত জনগণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মাস্ক বিতরণ করছি। অনেকেই রাস্তায় চলাচল করছে মাস্ক ছাড়া তাদেরকে মাস্ক বিতরণ করছি।

 

কলাবাগান এলাকায় মাস্ক বিতরণ করেন রমনা জোনের উপ পুলিশ কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন বলেন, করোনায় আক্রান্তদের সংখ্যা বাড়ছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে। আমরা আইজিপি ও ডিএমপি কমিশনার মহোদয়ের নির্দেশে মাস্ক বিতরণ করছি।

গুলশান বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী সচেতনতা মূলক কার্যক্রমের বিষয়ে বলেন, করোনা সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে পুলিশের এমন উদ্যোগ। ভ্যাকসিন নিলেও মাস্ক ব্যবহারের পাশাপাশি সচেতন থাকতে হবে সবাইকে। এ রোগটি নিয়ন্ত্রণে সচেতনতা আর কোনও বিকল্প নেই।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top