ঢাকা সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ৩ কার্তিক ১৪২৮

নির্বাচনী এলাকা লকডাউন মুক্ত রাখতে ইসির চিঠি

নিজস্ব প্রতিবেদক: | প্রকাশিত: ৮ জুন ২০২১ ০২:১৫; আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২১ ১৬:৪৫

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে স্থগিত থাকা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি), পৌরসভা এবং সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণের নতুন তফসিল ঘোষণা করেছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান নির্বাচন কমিশন (ইসি)। 

তফসিল অনুযায়ী ৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদ, ১১ পৌরসভা ও চার সংসদীয় শূন্য আসনের নির্বাচন লকডাউনের আওতামুক্ত রাখতে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকদের কাছে চিঠি দিয়েছে ইসি। 

আগামী ২১ জুন ৩৭১ ইউপি, ১১ পৌরসভা ও লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এছাড়া, ১৪ জুলাই ঢাকা-১৪, কুমিল্লা-৫ ও সিলেট-৩ আসনের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

গত ২ জুন ভোটের তফসিল ঘোষণার পর ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার ভোটের কার্যক্রম লকডাউনের আওতামুক্ত রাখতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে চিঠি দিয়েছিলেন।

এরই ধারাবাহিকতায় ৬ জুন ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার উপ-সচিব মো. আতিয়ার রহমানের সই করা এ সংক্রান্ত চিঠি সংশ্লিষ্ট ডিসিদের কাছে পাঠানো হয়েছে। নির্বাচনে যাতে কোনো সমস্যা না হয়, সেজন্যই চিঠি দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে ইসির অতিরিক্ত সচিবে অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, নির্বাচন না করার জন্য আমরা লিখিত কোনো চিঠি কারও কাছ থেকে পাইনি। তবে কোনো সংস্থা বা বিভাগ যদি লিখিত কোনো চিঠি পাঠায়, তবে তা কমিশনের কাছে উপস্থাপন করব। কমিশন তখন সিদ্ধান্ত দেবে।

করোনার প্রথম ঢেউয়ের সময় সংসদের উপ-নির্বাচনসহ বেশ কিছু স্থানীয় নির্বাচন করেছিল নির্বাচন কমিশন। সে সময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভোটের আয়োজন করা হয়েছিল। এর আগে গত ৭ মার্চ ৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি), ১১ পৌরসভা, লক্ষ্মীপুর-২ আসনে ১১ এপ্রিল ভোটের তারিখ রেখে তফসিল দিয়েছিল ইসি। করোনার কারণে সে নির্বাচন ভোটগ্রহণের ১০ দিন আগে পিছিয়ে দেন সিইসি। এরপর ঢাকা-১৪, কুমিল্লা-৫ ও সিলেট-৩ আসনও শূন্য হয়। এখন সবগুলো নির্বাচন পেছানোর আর কোনো সুযোগ না থাকার যুক্তি তুলে ধরে গত ২ জুন ভোটের তারিখ দেয় ইসি।

৩৭১ ইউপির মধ্যে ১২০টির মতো ইউপি সীমান্তবর্তী জেলাগুলোয়, যেসব জেলায় করোনা সংক্রমণের উচ্চঝুঁকি রয়েছে। ইতোমধ্যে কয়েকটি জেলায় লকডাউন দেওয়া হয়েছে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top