ঢাকা শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯

আইসিইউতে মুমূর্ষু রোগীদের সেবায় প্রশিক্ষিত জনবল জরুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক: | প্রকাশিত: ২২ মে ২০২১ ১৫:২৫; আপডেট: ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ০৭:৪৩

আইসিইউতে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) মুমূর্ষু রোগীদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতে প্রশিক্ষিত জনবল জরুরি। তাই প্রশিক্ষিত জনবল সৃষ্টির উদ্যোগ এখনই নিতে হবে বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবার জন্য বিএসএমএমইউয়ে আইসিইউয়ের সংখ্যা এরইমধ্যে বাড়ানো হয়েছে।

শনিবার (২২ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের সি-ব্লকের প্রফেসর সামাদ সেমিনার হলে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত মুমূর্ষূ রোগীদের চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা নিয়ে চিকিৎসক ও নার্সদের জন্য আয়োজিত প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, আইসিইউতে মুমূর্ষু রোগীদের চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়ে থাকে বিধায় এখানে রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা নিশ্চিত করতে প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিইউতে প্রশিক্ষিত জনবল বাড়ানো হবে।

 

তিনি বলেন, বর্তমান জনকল্যাণমূলক সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জেলা-উপজেলাসহ প্রান্তিক পর্যায়েও যাতে রোগীরা আইসিইউ সেবা পান সেই পরিকল্পনা রয়েছে। প্রান্তিক পর্যায়ে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য প্রশিক্ষিত জনবল সৃষ্টির উদ্যোগ এখনই নিতে হবে।

উপাচার্য আরও বলেন, এখান থেকে প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান সংশ্লিষ্ট অন্য চিকিৎসক ও নার্সদের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়ে নিজেকে আরও সমৃদ্ধ করতে হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিইউতে চিকিৎসাসেবা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে কোনো কোনো রোগী আমাদেরকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য একটি বড় প্রাপ্তি।

প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অ্যানেসথেসিয়া বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. একেএম আখতারুজ্জামান। আরও বক্তব্য রাখেন উক্ত বিভাগের অধ্যাপক ডা. দেবব্রত বনিক।

এদিকে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ আজ তার কার্যালয়ে প্রশাসনিক মিটিংয়ে অংশ নেন। এছাড়াও তিনি ক্যাম্পাস পরিদর্শন করেন।

দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিন নিলেন ২৬৯ জন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কনভেনশন সেন্টারে শনিবার চলমান কঠোর লকডাউনের মধ্যেও মোট ২৬৯ জন কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন। এনিয়ে এই পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন ৪২ হাজার ৩শ ৬৬ জন।

এদিকে বেতার ভবনের পিসিআর ল্যাবে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৪২ হাজার ৯শ ১০ জনের কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয়েছে। বিএসএমএমইউয়ের ফিভার ক্লিনিকে এই পর্যন্ত ৯৬ হাজার ২শ ৪০ জন রোগী চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top