ঢাকা রবিবার, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

নিষেধাজ্ঞা মুক্ত হলো ভারতের ফুটবল

ক্রীড়া ডেস্ক | প্রকাশিত: ২৭ আগস্ট ২০২২ ১৯:২৭; আপডেট: ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২০:৫৯

 

‘মুক্তি’ পেল ভারতের ফুটবল। এর মধ‍্য দিয়ে কয়েকটি টুর্নামেন্টে ভারতের অংশগ্রহণ নিয়ে তৈরি হওয়া অনিশ্চয়তা কেটে গেল।

অল ইন্ডিয়া ফুটবল (এআইএফএফ) ফেডারেশনের ওপর দেওয়া নিষেধাজ্ঞা ১০ দিনের মাথায়ই তুলে নিল ফিফা। এর মধ‍্য দিয়ে কয়েকটি টুর্নামেন্টে ভারতের অংশগ্রহণ নিয়ে তৈরি হওয়া অনিশ্চয়তা কেটে গেল।

ফেডারেশনের ওপর ‘তৃতীয় পক্ষের অন্যায্য হস্তক্ষেপের’ কারণ দেখিয়ে গত ১৫ অগাস্ট সব ধরনের ফুটবলে ভারতে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা।

এতে আগামী ১১ থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত ভারতে অনুষ্ঠেয় মেয়েদের অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল বিশ্বকাপ চরম অনিশ্চয়তায় পড়ে যায়। নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় সেই সমস্যাও এখন কেটে গেল।

প্রফুল প্যাটেলের নেতৃত্বাধীন কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর এআইএফএফের সবশেষ নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল ২০২০ সালের ডিসেম্বরে। কিন্তু গঠনতন্ত্র সংশোধন সংক্রান্ত একটি জটিলতায় অচলাবস্থার তৈরি হয়। নির্বাচন না হওয়ায় প্যাটেলই দায়িত্বে রয়ে যান।

গত মে মাসে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত এআইএফএফের সেই কমিটি ভেঙে দিয়ে তিন সদস্যের একটি কমিটি গড়ে দেন। ফেডারেশন পরিচালনা, গঠনতন্ত্র সংশোধন ও দেড় বছর ধরে ঝুলে থাকা নির্বাচন আয়োজনের দায়িত্ব দেওয়া হয় ওই কমিটিকে।

এরপর এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) সাধারণ সম্পাদক উইন্ডসর জনের নেতৃত্বে একটি দলকে ভারতে পাঠায় ফিফা ও এএফসি। তারা ভারতের ফুটবল কর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করে একটি রোডম্যাপ তৈরি করে দেয়, যে অনুযায়ী জুলাইয়ের মধ্যে গঠনতন্ত্র সংশোধন করে ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নির্বাচন করতে বলা হয়।

রোডম্যাপ অনুযায়ী, অগাস্টের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে বিশেষ সাধারণ সভা ডেকে গঠনতন্ত্রে সংশোধনী অনুমোদনের কথা ছিল এআইএফএফের। তবে এই মাসের শুরুতে ভারতের সুপ্রীম কোর্ট আদেশ দেন দ্রুত নির্বাচন সেরে ফেলতে এবং নির্বাচিত কমিটি ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব নেবে তিন মাসের জন্য।

আদালতের আদেশে থমকে যায় ফিফা ও এএফসির করে দেওয়া রোডম্যাপ। ফিফা এরপর চিঠি দিয়ে এআইএফএফকে সতর্ক করে দেয় এবং আদালতের রায়ের অনুলিপি ফিফাতে পাঠাতে নির্দেশ দেয়। সেই সময়সীমা শেষের পর দেওয়া হয় নিষেধাজ্ঞা।

ফিফার শাস্তি ঘোষণার কয়েকদিন পরই অবশ্য ভারতের সর্বোচ্চ আদালত নিজেদের গড়ে দেওয়া কমিটি ভেঙে দেয়। এরপরই নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে ফিফার কাছে এআইএফএফ আবেদন করে বলে ভারতের সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়।

খুব দ্রুত সুফলও মিলে গেল। নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় নেপালের কাঠমাণ্ডুতে আগামী ৬ সেপ্টেম্বর শুরু হতে যাওয়া মেয়েদের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপেও ভারতের অংশগ্রহণ নিয়ে অচলাবস্থা কেটে গেল।

 




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top