ঢাকা সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ৩ কার্তিক ১৪২৮

শেষ সময়ের গোলে লজ্জার হার এড়াল বার্সালোনা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশিত: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২০:৩৭; আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২১ ১৫:৫৬

 

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে ভরাডুবির হতাশা কাটিয়ে উঠবে কী, উল্টো দুই মিনিটের মধ্যেই গোল হজম করে বার্সেলোনা। বাকি সময়ে অনেক চেষ্টা করেও প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের বাধা পেরুতে পারছিল না দলটি। বাধ সাধে ক্রসবারও। শেষ দিকে ত্রাণকর্তা হয়ে দেখা দিলেন রোনালদ আরাহো। এই ডিফেন্ডারের গোলে গ্রানাদার বিপক্ষে হার এড়াতে পারল রোনাল্ড কুমানের দল।

 

কাম্প নউয়ে সোমবার রাতে লা লিগার ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। দোমিনগোস দুয়ার্তের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল সফরকারীরা।

 

গত এপ্রিলে এই মাঠে লিগ ম্যাচে শুরুতে পিছিয়ে পড়েও ২-১ গোলে জিতেছিলে গ্রানাদা। এবারও তেমন কিছুর আশা দেখছিল তারা। শেষ পর্যন্ত অবশ্য তা হলো না। আসরে প্রথম জয়ের অপেক্ষাও তাদের বাড়ল।

 

ম্যাচে ৭৭ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে বার্সেলোনা গোলের জন্য মোট ১৭টি শট নেয়, যার ছয়টি লক্ষ্যে। গ্রানাদার পাঁচ শটের দুটি লক্ষ্যে ছিল।

 

চোটের কারণে মাঠের বাইরে একগাদা খেলোয়াড়। গত মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথম ম্যাচে বায়ার্নের বিপক্ষে ৩-০ গোলে হারা ম্যাচ থেকে একাদশে পাঁচটি পরিবর্তন আনেন বার্সেলোনা কোচ কুমান।

 

বার্সেলোনা সমর্থকদের স্তব্ধ করে দ্বিতীয় মিনিটে এগিয়ে যায় গ্রানাদা। প্রতিপক্ষের কর্নার ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেনি স্বাগতিকরা। বাঁ দিক থেকে সতীর্থের ক্রসে দূরের পোস্টে হেডে ফাঁকা জালে বল পাঠান অরক্ষিত দুয়ার্তে।

 

ষষ্ঠ মিনিটে ফেলিপে কৌতিনিয়ো বল নিয়ে প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে পড়ে গেলে পেনাল্টির আবেদন করে বার্সেলোনা। তবে রেফারির সাড়া মেলেনি।

 

ত্রয়োদশ মিনিটে আবার বার্সেলোনার রক্ষণে ভীতি ছড়ায় গ্রানাদা। কয়েকজন খেলোয়াড়ের বাধা এড়িয়ে বাঁ দিক থেকে ক্রস বাড়ান দারউইন মার্চিস। তবে ছয় গজ বক্সের সামনে থেকে হোর্হে মোলিনার ভলি ক্রসবারের সামান্য ওপর দিয়ে উড়ে যায়।

 

অষ্টাদশ মিনিটে বার্সেলোনা সমতায় ফিরতে পারত, কিন্তু বাধ সাধে দুর্ভাগ্য। কর্নার ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেনি সফরকারীরা। ডি-বক্সের ভেতর থেকে সের্হি রবের্তোর শট ক্রসবারে লাগে। ২৪তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে মেমফিস ডিপাইয়ের শট উড়ে যায় ক্রসবারের অনেক ওপর দিয়ে।

 

এরপর খেলার গতি কমে আসে কিছুটা। ৪২তম মিনিটে লিগে অভিষিক্ত যুব দলের ১৭ বছর বয়সী ডিফেন্ডার আলেহান্দ্রো বালদেকে তুলে নিয়ে অস্কার মিনগেসাকে নামান কুমান। পরের মিনিটে ২০ গজ দূর থেকে রদ্রিগেস হিমেনেসের জোরালো শট পাঞ্চ করে ফেরান মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন।

 

নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে অসাধারণ এক সেভ করেন গ্রানাদার গোলরক্ষক লুইস মাক্সিমিয়ানো। মেমফিসের ফ্রি-কিকে অনেকটা লাফিয়ে আরাহোর নেওয়া হেড ডান দিকে ঝাঁপিয়ে এক হাতে ফেরান তিনি। যোগ করা সময়ে কর্নার থেকে ফ্রেংকি ডি ইয়ংয়ের হেডও ঠেকান এই পর্তুগিজ।

 

দ্বিতীয়ার্ধেও গ্রানাদার ওপর চাপ ধরে রাখে বার্সেলোনা। ৫১তম মিনিটে কৌতিনিয়োর ক্রস পাঞ্চ করে ফেরান মাক্সিমিয়ানো।

 

৭৫তম মিনিটে সের্হিও বুসকেতসকে তুলে নিয়ে মৌসুমে প্রথমবারের মতো রিকি পুসকে মাঠে নামান কুমান। আর ইউসুফ দেমির বদলি নামেন জেরার্দ পিকে। পাঁচ মিনিট পর পিকের হেড সহজেই ধরে ফেলেন গোলরক্ষক।

 

৮৮তম মিনিটে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের চ্যালেঞ্জে পড়ে যাওয়ার পর মেজাজ হারিয়ে তাকে ধাক্কা মারেন আরাহো। দেখেন হলুদ কার্ডও। সেই তিনিই নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে গোল করে বাঁচান দলকে। টিনএজার গাভির ক্রসে কাছ থেকে হেডে ঠিকানা খুঁজে নেন উরুগুয়ের ডিফেন্ডার।

 

চার ম্যাচে দুটি করে জয় ও ড্রয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে আছে বার্সেলোনা। ৩ পয়েন্ট নিয়ে ১৭তম স্থানে গ্রানাদা।

 

পাঁচ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। ২ পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে গতবারের চ্যাম্পিয়ন আতলেতিকো মাদ্রিদ। সমান ১০ পয়েন্ট করে নিয়ে ভালেন্সিয়া তিনে ও রিয়াল সোসিয়েদাদ চারে আছে।

 




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top