ঢাকা, ২১ জানুয়ারী ২০১৭, ৮ মাঘ ১৪২৩, স্থানীয় সময়: ২৩:২৬:১২

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

বদলগাছিতে চেয়ারম্যান-সচিবের বিরুদ্ধে মামলা চট্টগ্রাম আদালতের ঘটনায় প্রধান বিচারপতি বিস্মিত নারায়ণগঞ্জে শিক্ষক লাঞ্ছনা তদন্ত প্রতিবেদন হাইকোর্টে বড়াইগ্রামে হোটেল মালিকের জরিমানা সুপ্রিম কোর্টের দুই বিভাগেই আজ ছুটি ঘোষণা বিমানে ত্রুটি: ২ কর্মকর্তা ফের রিমান্ডে মুফতি হান্নানের মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত রায় প্রকাশ নাটোরে নকল প্রসাধনী কারখানায় জরিমানা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মিষ্টি তৈরীর অভিযোগে জরিমানা নাটোরে আনসারুল্লাাহ টিমের মামলার চার্জ গঠন দ্রুত আপিল শুনানির চেষ্টা করা হবে: অ্যাটর্নি জেনারেল উচ্চ আদালতেও আসামিরা রেহাই পাবে না: সাখাওয়াত অ্যাটর্নি জেনারেলের বিষয়ে আদেশ ২৩ জানুয়ারি প্রবাসীদের স্বার্থে নাগরিকত্ব আইন: আইনমন্ত্রী

পাঠাগার করছেন প্রধান বিচারপতি

আইন-আদালত, প্রধান সংবাদ, শিরোনাম, সর্বশেষ | ২৫ পৌষ ১৪২৩ | Sunday, January 8, 2017

সংবাদ প্রতিদিন: একটি পাবলিক লাইব্রেরি তৈরির কাজ শুরু করেছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। যেখানে তিনি নিজের সারাজীবনের আয়ের মধ্যে খরচ বাদে বাকি অর্থ ব্যয় করার ঘোষণা দিয়েছেন।---

আজ রবিবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির উদ্যোগে বার ভবনে আয়োজিত বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা জানান।

প্রধান বিচারপতি বলেন, আরেকটা জিনিস আমি প্রকাশ করিনি। সেই চিন্তাভাবনা করেই আমি কিন্তু আমার ব্যক্তিগত লাইব্রেরি ছাড়া আমি একটা পাবলিক লাইব্রেরি করছি। এই লাইব্রেরিতে ইতোমধ্যে আমি ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকার বই কিনেছি। আমি একেবারে ব্যক্তিগত যে চিন্তাভাবনা করছিলাম একটা চারতলা বিল্ডিং করে আমার সারা জীবনে যা ইনকাম করেছি আমার খরচ বাদে একটা লাইব্রেরির পেছনে খরচ করব।

সেই লাইব্রেরিতে কিছু শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছ থেকে অনুদানও নিচ্ছেন বলে জানান।

তিনি বলেন, যার পরিপ্রেক্ষিতে হয়তো আমার কয়েকজন শুভাকাঙ্ক্ষী আমেরিকা থেকে বই অনুদান করতে যাচ্ছেন। এতোদিন ভেবেছিলাম আমি অন্য কারও ডোনেশন নেব না। এখন অবশ্য নির্দিষ্ট কিছু পেশাদার ব্যক্তি ও শুভাকাঙ্ক্ষীদেরটা নিচ্ছি এবং এটা আমি ওয়েবসাইটে দিচ্ছি।

বিভিন্ন রায়ে বিচারপতিদেরও দুর্বলতা থাকে বলেও স্বীকার করেন প্রধান বিচারপতি।

তিনি বলেন, আমি আজকে সুপ্রিম কোর্ট বারের অডিটরিয়ামে প্রকাশ্যভাবে বলছি আমাদের যেগুলো জাজমেন্ট হয় তাতে অনেক ত্রুটি আছে। আমি নিজেই আমি আমার জাজমেন্টে ত্রুটি পাই। বছর খানেক বা দুই বছর আগে যে রায় লিখি এখন দেখি এটা কি লিখলাম!

এজন্য দুর্বলতাগুলো ধরিয়ে দিয়ে সিনিয়র আইনজীবীদের গঠনমূলক সমালোচনা করার আহ্বানও জানান এসকে সিনহা।

তিনি বলেন, আমি এমন একজন বিজ্ঞ আইনজীবী পেলাম না যে আমার রায়ে কি ত্রুটি আছে তা ধরিয়ে দেবেন। আইনজীবীরা কেন সে সব বিষয়ে লিখেন না। আমি আহ্বান জানাচ্ছি আমাদের কোন জায়গায় ত্রুটি আছে, আপনারা গঠনমূলক সমালোচনা করুন। আমি ওয়েলকাম জানাব। দুঃখজনক হলো আমরা কোনো কনস্ট্রাকটিভ সমালোচনা না করে ইয়েলো জার্নালিজম টাইপের মন্তব্য করি।

সবাইকে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, আমি যেটা মনে করি লাইব্রেরিতো আছেই। বইগুলো আপনারা ডাইনিং টেবিলে, বেড রুমের পাশে, ড্রয়িংরুমে যেখানে সারাদিনে সচরাচর বসেন পছন্দমতো বই সেখানে রেখে দিন। জাস্ট যখন মনে হলো হাত বাড়িয়ে পড়লেন। আপনারা গিয়ে দেখবেন আমার পুরো বাড়ি হলো একটা লাইব্রেরি। নিচতলা উপরতলা সব জায়গায় বই। বিছানায় ঘুমানোর সময়ও পাশে বই থাকে।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সমিতির বইমেলা প্রসঙ্গে এসকে সিনহা বলেন, এরকম একটা বইমেলার স্বপ্ন দেখেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের একজন মহিলা আইনজীবী। তিনি নিজেও একজন লেখক। আমি এটা খুব এপ্রিসিয়েট করি।

আমেরিকার উদাহরণ দিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, আমেরিকাতে রাষ্ট্রপতি হয়ে যারা রিটায়ার করেন তিনি একটা লাইব্রেরি করেন। এটা একটা কনভেনশন বা ট্রেডিশন চলে আসছে। আমাদের এখানে কিন্তু কোনো লাইব্রেরি করা হয় না।

তাই নিজের দৃষ্টান্ত অনুসরণ করে অন্যদেরও লাইব্রেরি গড়ে তোলার আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদ প্রতিদিন/রিন্টু