ঢাকা, ২৩ মার্চ ২০১৭, ৯ চৈত্র ১৪২৩, স্থানীয় সময়: ২০:২০:৫১

রক্ত জমাট বাধা প্রতিরোধে করে অলিভ ওয়েল

লাইফস্টাইল, শিরোনাম, সর্বশেষ, স্বাস্থ্য | ৭ পৌষ ১৪২৩ | Wednesday, December 21, 2016

অনলাইন ডেস্ক: হৃদরোগে মৃত্যুর ৫০ শতাংশের কারণ হিসেবে হৎপিণ্ডের শিরা-উপশিরার বিভিন্ন রোগের কথা বলা হয়ে থাকে। হৃৎপিণ্ডের শিরা-উপশিরার অভ্যন্তরে ক্ষত বা প্রদাহ হলে রক্তে অবস্থিত প্ল্যাটিলেট, লিপিড বা চর্বি, কোলেস্টেরল ও আঁশজাতীয় পদার্থ শিরার নিচের স্তর ইন্টিমাকে আক্রমণ করে ও পুঞ্জীভূত হয়।

---

এতে শিরার সংকোচন প্রসারণ ক্ষমতা লোপ পায় এবং শিরা সংকীর্ণ বা সরু হয়ে পড়ে। রক্তচাপ স্বাভাবিক মাত্রায় রাখতে জীবন যাপনের পদ্ধতি, খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন ও ব্যায়ামের পরামর্শ দেন বিশেজ্ঞরা।

প্রাকৃতিক উপায়ে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা গেলে ওষুধের ওপর নির্ভরশীলতা কমে যায়। তাই জেনে নিন বিশেষ কিছু খাবারের কথা যা খেলে শিরায় রক্ত জমাট বাধা প্রতিরোধে সাহায্য করবে এবং হার্ট সুস্থ থাকবে।

অলিভ ওয়েল: অলিভ ওয়েল বা জলপাইয়ের তেলে থাকা ম্যানুস্যাচুরেটেড চর্বি খারাপ কোলেস্টেরল প্রতিরোধ করে ও শিরায় রক্ত জমাট বাঁধতে বাধা দেয়।

ওটমিল: ওটসের সলিউবল আঁশ কোলেস্টেরল তৈরিতে বাধা দেয়। এই আঁশ হৃৎপিণ্ডের শিরার রক্তের জমাট প্রতিরোধ করে।

ডালিম: ডালিম একটি শক্তিশালী অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। এটি শিরার শক্ত হয়ে যাওয়া সমস্যার সঙ্গে লড়াই করে এবং শিরার রক্ত জমাট বাঁধা প্রতিরোধ করে।

মাছ : স্যালমন, টুনা ইত্যাদি মাছে রয়েছে ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড। ওমেগা থ্রি জমাট বাঁধা রক্ত প্রতিরোধ করে।

টমেটো: টমেটোতে রয়েছে লাইকোপেন। যাদের শরীরে লাইকোপেন ভালো মাত্রায় থাকে, তাদের হৃৎপিণ্ডের শিরার সমস্যা কমে যায়। এছাড়া টমোটো হৃৎপিণ্ডের শিরাকে শক্ত হতে দেয় না।

রসুন: রসুন উচ্চ রক্তচাপ এবং হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। এছাড়া হৃৎপিণ্ডের শিরার জমে যাওয়া রক্ত প্রবাহিত করে।

//সংবাদ প্রতিদিন//স/শ